রাত ৩:৪৬, ৮ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ভারতকে হুঁশিয়ারি দিয়েছে বাংলাদেশ: দাবি ভারতীয় মিডিয়ার

ভারতের অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের কাজ খুব শিগগিরই শুরু হতে যাচ্ছে। আগামী ৫ আগস্ট অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তবে মন্দির নির্মাণের আগে বাংলাদেশ নাকি হুঁশিয়ারি দিয়েছে এমন শিরোনামে ভারতীয় বেশকিছু সংবাদমাধ্যম সংবাদ প্রকাশ করেছে।

বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেনের উদ্ধৃতি দিয়ে সোমবার (২৭ জুলাই) ভারতের একাধিক সংবাদমাধ্যমে খবর প্রকাশ করা হয়েছে। ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো দাবি করেছে, মন্দির নির্মাণকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশ-ভারত দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে চিড় দেখা দিতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

আরও পড়ুন: রেলওয়েতে পরিবর্তন, ‘টিকিট যার, ভ্রমণ তার’

আনন্দবাজার, নিউজ ১৮ ও দ্য হিন্দুর প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে, ‘রাম মন্দির নির্মাণের উদ্যোগের বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, ভারতেরের এমন পদক্ষেপ নেওয়া উচিৎ হয়নি, যা প্রতিবেশী দেশের সম্পর্কে আঘাত হানতে পারে।

আনন্দবাজার পত্রিকা এ সম্পর্কিত খবরটির শিরোনাম করেছে, ‘রামমন্দির ঘিরে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে চিড় দেখছে বাংলাদেশ?’

সংবাদমাধ্যম নিউজ১৮ কড়া শিরোনাম করেছে ‘অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের ঠিক আগে ভারতকে রীতিমতো হুঁশিয়ারি দিল বাংলাদেশ’। তবে দুটি সংবাদমাধ্যমে একই তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

অন্যদিকে দ্য হিন্দু-র প্রতিবেদনে পররাষ্ট্র মন্ত্রীর বক্তব্যে বলা হয়েছে, তিনি বলেন, ‘আমরা দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে আঘাত হানতে এই বিষয়টি (রাম মন্দির নির্মাণ) অনুমোদন করব না।’

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের সূচনার মাধ্যমে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরোধীদের হাতে নতুন রাজনৈতিক হাতিয়ার হয়ে ওঠার সম্ভাবনা প্রবল। রাম মন্দির ইস্যুতে দুই দেশই দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক নষ্ট করতে চাইবে না৷ কিন্তু ভারতের এমন কোনও কাজ করা ঠিক নয়, যা বাংলাদেশের সঙ্গে গভীর বন্ধুত্ব ও সম্পর্ককে নষ্ট করে দেবে।